January 25, 2021, 8:48 pm

Notice :
এই অনলাইন সংবাদপত্রটি ,আর এম জি সেক্টরের উদ্যোক্তা, কর্মকর্তা, কর্মচারী ও শ্রমিকদের নিয়েই আমাদের এই পত্রিকা। আর.এম.জি নিউজ ২৪ একটি সত্য বস্তুনিষ্ট অনলাইন সংবাদপত্র। এইটি আপনাদেরই সংবাদপত্র এবং আপনাদের পরামর্শ ও সহযোগিতা নিয়ে এগিয়ে যেতে চাই। আপনাদের সফলতার গল্প নতুনদের এগিয়ে নিয়ে যাবে। বাংলা অনলাইন জগতে আর.এম.জি সেক্টরের সকল দিক তুলে ধরার প্রচেষ্টা নিয়ে আমাদের সূচনা। তাই আমাদের সাইট ভিজিট করুন ও নিজেরাই মূল্যায়ণ করে আপনাদের মতামত তুলে ধরুন- সম্পাদক (আর.এম.জি নিউজ ২৪)
News Headline's :
চট্টগ্রামে টপ ষ্টার গ্রুপে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি পোশাক খাতে করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের ধাক্কা সিভির কাভার লেটার কেমন হওয়া উচিত?-রিয়াদ মোঃ আরেফিন পেনশন ভোগী কবে হবে পোশাক শিল্পের সাথে জড়িতরা? লিখেছেন- এম.এ মান্নান পাভেল রেফারেন্স বিহীন চাকরি হয় না-লিখেছেনঃ নূরে এ.খান- নির্বাহী পরিচালক, নাসা গ্রুপ সাময়িক শ্রমিক – একটি আইনগত বিশ্লেষণ (ধারাবাহিক পর্বের- ৫ম পর্ব) মানুষের মন জয় করার অসম্ভব ক্ষমতা ছিল এমদাদ ভাইয়ের-সম্পাদকীয় কলাম সহকর্মী ও অধীনস্তদের প্রতি সহনশীল ও দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করুন- নাসির মাহমুদ পারভেজ প্রতিষ্ঠানে অস্থায়ী শ্রমিক নিয়োগ, সমস্যা ও সম্ভাবনা (ধারাবাহিক পর্বের- ৪র্থ পর্ব) ঈদ উল আযহা উপলক্ষে ইকোটেক এনভায়রনমেন্টাল সলিশনের শুভেচ্ছা

নতুন দিগন্তে, নতুন সূচনা – সম্পাদকীয় কলাম

বাংলাদেশ একটি উন্নয়নশীল দেশ। আমাদের এই দেশ উন্নয়নশীল হওয়ার পেছনে যেসব শিল্পখাতগুলো রয়েছে তার মধ্যে পোশাক খাতের অবদান অপরিসীম। পোশাক শিল্পের মাধ্যমে বাংলদেশ প্রচুর বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করে অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছে। পোশাক শিল্পের কথা বলতে গেলেই উঠে আসে লাখো লাখো শ্রমিকের কথা। যাদের কষ্টের বিনিময়ে বাংলাদেশের পোশাক শিল্প বর্তমান রূপ নিয়েছে, এর মাধ্যমে লাখো লাখো শ্রমিকের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে। বিশেষ করে মহিলারা আজ নিজেই নিজের কর্মসংস্থান করতে পারছে। ষাটের দশকে পোশাক শিল্পের যাত্রা শুরু হয়। প্রথম দিকে শিশুদের জামাকাপড় এবং পুরুষদের পরিধানযোগ্য গেঞ্জি নিজেদের চাহিদা মতো স্থানীয় দর্জিদের মাধ্যমে সেলাই করে সরবরাহ করা হতো। পরবর্তীতে সত্তরের শেষের দিক থেকে বাংলাদেশে রপ্তানীখাত হিসেবে পোশাক শিল্প গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখতে শুরু করে। এর পেছনে অবশ্য আমাদের আর এমজি সেক্টরের মালিকদের অবদান ও কম নয়। তাঁরা উদ্যোগ নিয়েছিল বলেই রপ্তানীখাতে পোশাক শিল্প জায়গা করে নিতে পেরেছে। প্রথম দিকে এই শতভাগ রপ্তানীমুখী শিল্প সম্পূর্নভাবেই কাঁচামাল নির্ভর ছিল। পরবর্তীতে সময়ের ব্যবধানে বাংলাদেশী মালিকদের অভিজ্ঞতায় পরিস্থিতির উন্নতি হয় এবং স্থানীয়ভাবে দক্ষতা বৃদ্ধি করে রপ্তানীযোগ্য সুতা ও কাপড় উৎপাদন শুরু করে। এতে করে পোশাক খাত বাংলাদেশের জিডিপিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখে এবং লাখো মানুষের কর্মসংস্থানের সুযোগ করে দিয়েছেন। তাই আর এম জি সেক্টর বর্তমানে যে পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে আছে তা হল বাংলাদেশী মালিক ও লাখো মানুষের অক্লান্ত পরিশ্রমের ফসল। এই সেক্টরের মাধ্যমে অনেক শিক্ষিত বেকার তাদের বেকারত্বের অবসান ঘটিয়েছে। তাই মূলত আর এম জি সেক্টরের উদ্যোক্তা, কর্মকর্তা, কর্মচারী ও শ্রমিকদের নিয়েই আমাদের এই পত্রিকা। আর.এম.জি নিউজ ২৪ একটি সত্য বস্তুনিষ্ট অনলাইন সংবাদপত্র। এইটি আপনাদেরই সংবাদপত্র এবং আপনাদের পরামর্শ ও সহযোগিতা নিয়ে এগিয়ে যেতে চাই। আপনাদের সফলতার গল্প নতুনদের এগিয়ে নিয়ে যাবে। বাংলা অনলাইন জগতে আর.এম.জি সেক্টরের সকল দিক তুলে ধরার প্রচেষ্টা নিয়ে আমাদের সূচনা। তাই আমাদের সাইট ভিজিট করুন ও নিজেরাই মূল্যায়ণ করে আপনাদের মতামত তুলে ধরুন।

রিয়াদ মোঃ আরেফিন ইমন
সম্পাদক
আর.এম.জি নিউজ ২৪

স্যোশাল মিডিয়ায় শেয়ার করতে


     আর সংবাদ পরতে ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *



আর্কাইভ